কাশ্মীরে হাজারও মানুষের বিক্ষোভের প্রমাণ পেয়েছে বিবিসি | বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম – কাশ্মীরে হাজারও মানুষের বিক্ষোভের প্রমাণ পেয়েছে বিবিসি কাশ্মীরে হাজারও মানুষের বিক্ষোভের প্রমাণ পেয়েছে বিবিসি – বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম

কাশ্মীরে হাজারও মানুষের বিক্ষোভের প্রমাণ পেয়েছে বিবিসি

প্রকাশ: ১০ আগস্ট, ২০১৯ ৯:৫২ : অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক :: কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করেছে দেশটির সরকার। এর প্রতিবাদে রাজধানী শ্রীনগরে শুক্রবার (৯ আগস্ট) হাজার হাজার লোকের বিক্ষোভ করেছে। তবে ভারত সরকারের দাবি, এ রকম কোনো বিক্ষোভ সেখানে হয়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, গতকাল জুমার নামাজের জন্য কারফিউ কিছুটা শিথিল করার সুযোগে, মাত্র আধঘণ্টার মধ্যেই শ্রীনগরের ঈদগাহ ময়দানে হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়ে যায়।

এ রকম একটি ভিডিও হাতে আছে বলে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির দাবি। বিবিস বলছে, ওই ভিডিওতে দেখা যায়, হাজার হাজার লোকের সেই বিক্ষোভে কাশ্মীরের স্বাধীনতার পক্ষে স্লোগান উঠছে। ওই বিক্ষোভে পুলিশ টিয়ারগ্যাস ও ছররা গুলি নিক্ষেপ করে, যাতে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারী আহত হয়।

এদিকে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে শনিবার এক টুইট বার্তায় জানানো হয়, আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে যে, কাশ্মীরে প্রায় দশ হাজার মানুষ প্রতিবাদ বিক্ষোভে সামিল হয়েছিলেন। এ খবর মিথ্যা। এতে বলা হয়, শ্রীনগর বারামুল্লায় কয়েকটি বিক্ষোভ হয়েছে, কিন্তু কোনোটাতেই ২০ জনের বেশি মানুষ ছিলেন না। শুক্রবারের বিক্ষোভের পর থেকেই সেখানে কারফিউ জারি ছিল।

বিবিসির সংবাদদাতা রিয়াজ মাসরুর শ্রীনগর থেকে একটি ভিডিও পাঠিয়েছেন। এতে দেখা গেছে, শুক্রবার ওই শহরে জুম্মার নামাজের পর কয়েক হাজার মানুষের প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করছেন। বিক্ষোভকারীদের কারও হাতে কালো পতাকা, কারোবা সবুজের ওপরে চাঁদ-তারা আঁকানো পতাকা, কারও হাতে আবার ‘উই ওয়ান্ট ফ্রিডম’ লেখা পোস্টার। এছাড়া স্বাধীনতার দাবিতে স্লোগান তোলেন বিক্ষোভকারীরা।

 

রিয়াজ মাসরুর জানান, নিরাপত্তা বাহিনী প্রথমে মানুষকে জড়ো হতে বাধা দেয়নি। কিন্তু কিছুক্ষণ পরে এক জায়গায় প্রথমে শূন্যে গুলি চালায় তারা। পরে পেলেট গান থেকে ছররা গুলি ছোঁড়ে বিক্ষোভকারীদের ওপর। ভিডিওতে গুলি ছোঁড়ার শব্দ, মানুষ এদিক-সেদিক পালানোর দৃশ্য ধরা পড়েছে। কেউ কেউ আবার মাটিতে শুয়ে পড়ছেন বা হামাগুড়ি দিয়ে নিরাপদ জায়গার দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন।

ভারতের সংবিধান থেকে কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা দেয়া সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর থেকে রাজ্যটি কার্যত অবরুদ্ধ এবং বিচ্ছিন্ন অবস্থায় আছে। সেখানে কয়েক হাজার সেনা মোতায়েন করেছে মোদি সরকার। দোকান-পাট সব ব্ন্ধ। এমনকি টেলিফোন-ইন্টারনেট সংযোগ বিছিন্ন। কয়েকশ নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ বন্দী।

সূত্র : বিবিসি বাংলা