বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

খারাপ কাজকে যায়েজ করার অপচেষ্টা বরদাস্ত করা হবে না : পুলিশ কমিশনার

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম-বার বলেছেন- মানবিক পুলিশের বর্ধিত ভূমিকায় এগিয়ে থাকতে হবে, খারাপ কাজকে যায়েজ করার অপচেষ্টা বা অগ্রহণযোগ্য কোন আচরণ বরদাস্ত করা হবে না।

সোমবার (১৬ নভেম্বর) পুলিশ লাইন্স ড্রিল সেডে মাসিক কল্যাণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সভা শুরুতেই মরহুম সহকারী পুলিশ কমিশনার আনিসুল করিমের স্মরনে এক মিনিট দাড়িয়ে নিরবতা পালন ও তাঁর রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

পুলিশ কমিশনার বলেন, কর্তব্যের বাহিরে মানবিক পুলিশের বর্ধিত ভূমিকা যেন পিছিয়ে না পরে, কাজের যেন গতি ও পরিচ্ছন্নতা থাকে। নেতিবাচক অঘটন যেন না ঘটে সে বিষয়ে খেয়াল রেখে খুব সতর্কের সাথে সততা নিষ্ঠার সাথে নির্ভেজাল কাজ করে জনগণের কাঙ্খিত আস্থার প্রতীক হিসেবে নিজেকে যুক্ত রাখতে হবে। আমাদের বিশ্ব স্বীকৃত শৃঙ্খলাগুলো অবশ্যই বজায় রেখে পেশাদারীত্বকে জনদরবারে তুলে ধরতে হবে। অনৈতিক চিন্তা লালন করে ঘোজামিল দিয়ে পুলিশ বাহিনীতে থাকার সুযোগ নেই,বিবেক জাগ্রত করে পুলিশের আদর্শ উদ্দেশ্য লক্ষ্য মনে প্রাণে ধারন করে নিশানা ঠিক করে প্রতিটি পুলিশ সদস্যকে সমাজ সেবার ব্রত নিয়ে বিশুদ্ধ জনবান্ধব সেবায় এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি আরও বলেন, প্রতিটি তদন্তে যেন সঠিক চিত্র উঠে আসে, পেশার বাহিরে দুরভিসন্ধিমূলক ভাবে লাভবান হওয়ার জন্য কোন অন্যায় চেষ্টা, অনুকম্পা, খারাপ কাজকে যায়েজ করার অপচেষ্টা বা অগ্রহণযোগ্য কোন আচরণ বরদাস্ত করা হবে না। এ বিষয়ে শীর্ষ কর্মকর্তাদের মাঠপর্যায়ে নিখুঁত দৃষ্টি রাখতে হবে।

শাহাবুদ্দিন খান বলেন, মহামারী করোনার সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় শিথিলতা চলবে না। আমাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মান্যকারী রোল মডেল হতে হবে। ঢিলেঢালা ভাব নিয়ে রোল মডেলের আগুয়ান এ ভূমিকা থেকে পিছিয়ে যাওয়া চলবে না। করোনার প্রাদুর্ভাব এর শুরুতে আমরা যে দৃশ্যমান প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখেছি, তা আরও বেগবান হয়ে পুরোদমে চলমান রাখতে হবে।

তিনি বলেন, জনগণের সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে মানবাধিকার ক্ষুন্ন না করে নির্ভেজাল আইন প্রয়োগ করে অপরাধ দমন করার মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশকে সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব মর্মে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

কল্যাণ সভা শেষে ভালো কাজ এবং বিভিন্ন আভিযানিক কাজের সফলতার জন্য বিভিন্ন পদমর্যাদার অফিসারদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয় এবং অবসর জনিত বিদায় গ্রহণকারী সদস্যদের বিদায় সংবর্ধনা জানানো হয়।

সহকারি পুলিশ কমিশনার (বন্দর থানা) শারমিন সুলতানা রাখি’র সঞ্চালনায় কল্যাণ সভায় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার জনাব প্রলয় চিসিম, উপ -পুলিশ কমিশনার (সাপ্লাই এন্ড লজিস্টিকস) মোঃ জুলফিকার আলি হায়দার, উপ -পুলিশ কমিশনার (সদর-দপ্তর) আবু রায়হান মুহাম্মদ সালেহ্, উপ পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) মোঃ মোকতার হোসেন পিপিএম সেবা, উপ -পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার পিপিএম , উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মোঃ খাইরুল আলম, উপ-পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম অপারেশন এন্ড প্রসিকিউশন) খাঁন মুহাম্মদ আবু নাসেরসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :