বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নের স্বপ্ন সারথি পলাশ মৃধা!

নিজস্ব প্রতিবেদক :: আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বরিশাল সদর উপজেলার ১নং রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন চাচ্ছেন আওয়ামী লীগ নেতা ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক, দানবীর, শিক্ষানুরাগী মোঃ আনোয়ার হোসেন পলাশ মৃধা। তিনি সব সময় জনগণের পাশে থেকে কাজ করে চলেছেন।

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীতা ঘোষণার পর থেকেই জনসমর্থন- প্রসংশায় ভাসছেন আনোয়ার হোসেন পলাশ মৃধা। এমটাই জানিয়েছেন ১নং রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নের সাধারন মানুষ। বিশেষ করে তরুণদের আইকন হিসেবে পরিচিত মোঃ আনোয়ার হোসেন পলাশ মৃধা ইতিমধ্যেই প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে এই ইউনিয়নের স্বপ্ন সারথি একমাত্র তিনিই। পাশাপাশি স্থানীয় আওয়ামী লীগসহ দলীয় প্রতিটি নেতা কর্মীর কাছে প্রিয় ও আস্থা রাখতে স্বক্ষম হয়েছেন তিনি। সকলের সুখ দুঃখে সব সময়েই পাশে থাকেন। এমন একজন সুশিক্ষিত নেতাকে চেয়ারম্যান হিসাবে পেলে ইউনিয়নে উন্নয়ন ও ইউনিয়নবাসী ভাল থাকবে এমনটাই জানান ইউনিয়নের একাধিক সচেতন ব্যক্তি।

তিনি এবার দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশায় জনসর্মথন আদায় এবং সংগঠনিকভাবে নিজেকে উপস্থাপনে তার নির্বাচনী ভাবনার প্রেক্ষাপটে বিভিন্ন উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। বিশেষ করে তার নির্বাচনী প্রধান স্লোগানটি তরুণদের মন কেড়েছে ‘আসুন দারিদ্র্যমুক্ত শিক্ষিত সমাজ গড়তে তরুণ নেতৃত্বকে স্বাগত জানাই’ যা ইতিমধ্যে বেশ সাড়াও ফেলেছে। প্রতিদিনই চলছে তার কম বেশি নির্বাচনী প্রস্ততিমূলক প্রচারনা ও ইউনিয়নবাসীর সেবামুলক কাজ। ইউনিয়নবাসীর আস্থা মোঃ আনোয়ার হোসেন পলাশ মৃধা। তিনিও আস্থার প্রতিক হিসাবে ইউনিয়নবাসীর জন্য নিজেকে উজাড় করে দিচ্ছেন ।

ইতিপূর্বে তিনি ১নং রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী কড়াপুর পপুলার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন এবং গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দিয়ে এক চমক দেখিয়েছেন, সৃষ্টি করেছেন এক দৃষ্টান্ত, যা নজর কেড়েছে ইউনিয়নবাসীর। তার বিভিন্ন সময়ের সিদ্ধান্ত নেওয়ার স্টাইল’ ক্লিন ইমেজের নিষ্ঠাবান বিচক্ষণ ব্যাক্তি হিসেবে ইউনিয়নবাসীর কাছে নিজের পরিচিতি করতে সক্ষম করেছে।

এদিকে দলীয় মনোনয়ন পেতে দলীয়ভাবে সক্রিয় অবস্থানে তিনি। অবশ্য সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত সর্বপরি দক্ষিণ বাংলার প্রাণ পুরুষ, পার্বত্য শান্তি চুক্তির রূপকার, মাননীয় মন্ত্রী (পদ মর্যাদা), সাবেক চিফ হুইপ, বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপির নিকট থাকায় তার নির্দেশনায় তিনি এলাকায় ব্যাপক সামাজিক সংগঠনসহ নানা উন্নয়ন ও সেবা মুলক কাজ করে যাচ্ছেন। শুধু তাই নয় এলাকায় অসহায় ও খেটে খাওয়া মানুষকে ব্যাপক অর্থিক সহায়তা দিয়ে ব্যাপক সুনাম কুরিয়েছেন বলে জানা গেছে। দারিদ্র বিমোচন ও শিক্ষা সংশ্লিষ্ট কাজে তার রয়েছে আলাদা এক পরিচিতি।

এবারের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পাওয়া নিয়ে শতভাগ আশাবাক্ত করে তিনি বলেন, আমার নেতা ও অভিভাবক বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপি মহোদয় এর নির্দেশনা অক্ষরে অক্ষরে মেনে রাজনীতি করি। সেক্ষেত্রে তিনি নৌকার মাঝি হতে পারবে্ বলে আশাবাদী। পাশাপাশি জেলা ও উপজেলাসহ সকল স্তরের আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীদের কাছে গ্রহনযোগ্যতা অর্জন করেছেন। রয়েছে সাধারণ মানুষের ভালবাসা ও সমর্থন।

তিনি দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যায় নিয়ে ১নং রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নকে আধুনিক ইউনিয়ন গড়ার স্বপ্ন দেখছেন বলে জানান এ বিশিষ্ট সমাজসেবক গরিব দুঃখী মেহনতী মানুষের আস্থার প্রতিক মোঃ আনোয়ার হোসেন পলাশ মৃধা । তার দাবী, সুখ-দুঃখে সব সময় এলাকাবাসির পাশে আছি এবং থাকবো।

তরুনদের সাথে নিয়ে, পরিবর্তনের নতুন ধারা সৃষ্টিতে নয়া আঙ্গিকে ১নং রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়ন পরিষদকে একটি মডেল, আধুনিক, ডিজিটাল ইউনিয়নে রূপান্তরের লক্ষে তিনি বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন। আশাবাদি আসন্ন নির্বাচনে দল তাকে মনোনয়ন দিলে সেই কর্মসূচি পূরনে সহায়ক হবে।

সদা হাস্যজ্জল এই উদীয়মান, সুশিক্ষিত, তরুণ এ নেতাকে এলাকাবাসিও চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায়। জনপ্রিয়তা ও জনসমর্থন সব ক্ষেত্রেই সম্ভব্য অপরাপর প্রার্থীর তুলনায় এগিয়ে রয়েছেন মোঃ আনোয়ার হোসেন পলাশ মৃধা ।

তার বড় শক্তি তরুণ প্রজন্ম, এলাকার সাধারণ জনগণ ও আ’লীগের সকল স্তরের নেতাকর্মীদের ভালবাসা। তার দারিদ্র্য মুক্ত ও শিক্ষিত সমাজ গড়ার প্রত্যয়কে বাস্তবে রুপ দেয়ার লক্ষে পৌঁছে যাবেন তার নির্দিষ্ট গন্তব্যে এমনটাই প্রত্যাশা সর্বস্তরের জনগণের।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :