বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

দোকানের সাইনবোর্ডে শেখ হাসিনার নাম ও ছবি ব্যবহার করায় এলাকায় উত্তেজনা

অনলাইন ডেস্ক :: সিলেট নগরের লালদিঘীর পাড় এলাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম ও ছবি ব্যবহার করে একটি দোকানে সাইনবোর্ড টাঙানো হয়। বিষয়টি নজরে আসলে স্থানীয় ব্যবসায়ীসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থলে জমায়েত হন। এ নিয়ে এক পর্যায়ে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে বন্দরবাজার ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই সাইনবোর্ড সরিয়ে নিলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

পুলিশ ও স্থানীয় ব্যবসায়ী সূত্রে জানা গেছে, নগরের লালদিঘীর পাড় নতুন মার্কেটের বি ব্লকে চা-পাতার দোকান দিয়ে ব্যবসা করেন সাইফুর হোসেন সাজ্জাদ ব্যাপারী নামে এক ব্যবসায়ী। তিনি ওরিয়ন টি-কোম্পানি লিমিটেড ও মডার্ন ফুড লিমিটেডের ডিলার।

মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) হঠাৎ সাইফুরকে দোকানের দ্বিতীয় তলায় ‘শেখ হাসিনা স্টোর’ নামে সাইনবোর্ড টাঙাতে দেখা যায়। এ সাইনবোর্ডে বড় করে প্রধানমন্ত্রীর ছবিও ব্যবহার করা হয়েছে।

এমন সাইনবোর্ড নিয়ে দুপুর থেকেই লালদিঘীর পাড় এলাকায় আলোচনা-সমালোচনা চলতে থাকে। সময় গড়ালে তা উত্তেজনায় রূপ নেয়। প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন স্থানীয় ব্যবসায়ীসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

স্থানীয় ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, সাইফুর হোসেন সাজ্জাদ ব্যাপারীর কোনো ট্রেড লাইসেন্স নেই। তিনি তার অবৈধ ব্যবসা চালানোর ক্ষেত্রে প্রশাসনের হাত থেকে বাঁচতে এমন চাতুরতার পথ বেছে নিয়েছেন। তাছাড়া তিনি আওয়ামী লীগের কোনো নেতা বা কর্মী এমনকি সমর্থকও নন।

বিষয়টি নিয়ে উত্তেজনার খবর পেয়ে বিকেল তিনটার দিকে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে বন্দরবাজার ফাঁড়ির একদল পুলিশ সাইনবোর্ডটি নামিয়ে ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। তবে এ সময় সাইফুর ব্যাপারীকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। ওই ব্যবসায়ীর সাইনবোর্ডে দেয়া মোবাইল নম্বরে কল দিলেও কেউ রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মুহিউদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, স্থানীয় ব্যবসায়ী এবং আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের দেয়া খবরের ভিত্তিতে ফাঁড়ির একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে এবং সাইনবোর্ডটি খুলে নিয়ে আসে। তবে যিনি সাইনবোর্ড লাগিয়েছেন তাকে আমরা খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি। তদন্ত সাপেক্ষে এ বিষয়ে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :