বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

পটুয়াখালীর যুবক ঢাকায় ধর্ষণ মামলায় আটক

অনলাইন ডেস্ক:: আশুলিয়ায় গত ৩ দিনে পৃথক স্থানে ২ শিশু ও ১ পোশাক শ্রমিককে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকায় সাত বছরের শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা ও ঘোষবাগ এলাকায় নারী শ্রমিককে ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ। জিরাবো এলাকায় ধর্ষিতা শিশুকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্যে পাঠানো হয়েছে বলে জানা যায়।

আটককৃতরা হলো- আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকার আলহাজ (৫৫), অপরজন পটুয়াখালী জেলার দশমিনা সদর থানার আবুল হোসেনের ছেলে ইকবাল হোসেন (৩৪)। ইকবাল আশুলিয়ার ঘোষবাগ এলাকার ভাড়া বাসায় থেকে হামিম গ্রুপে কাজ করে।

গত শনিবার (১১ জানুয়ারি) আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকায় সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে ভুক্তভোগির প্রতিবেশী আলহাজকে গ্রেফতার করা হয়। অন্যদিকে অপর ঘটনায় আশুলিয়ার ঘোষবাগ এলাকায় স্থানীয় নাসা গ্রুপ নামে একটি পোশাক কারখানার শ্রমিককে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে ভুক্তভোগির খালাতো বোনের দেবরকে গ্রেফতার করা হয়।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক আসওয়াদুর রহমান জানান, গত শনিবার বিকেলে আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকায় বাড়ির পাশের একটি মাঠে বন্ধুদের সাথে খেলছিলো ভুক্তভোগী শিশু। এসময় প্রতিবেশী আলহাজ নামের এক ব্যক্তি কৌশলে শিশুটিকে মাঠের এক পাশে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। পরে শিশুটি চিৎকার দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে দৌড়ে পালিয়ে এসে তার পরিবারকে বিষয়টি জানায়। পরে শিশুর পরিবার পরের দিন রোববার রাতে এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাতেই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক করে। পরবর্তীতে মামলা দায়েরের পর সোমবার আসামিকে আদালতে প্রেরণ করা হয় বলেও জানান তিনি।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফজর আলী জানান, ভুক্তভোগি ওই নারী পোশাক শ্রমিক আশুলিয়ার ঘোষবাগ এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে স্থানীয় নাসা গ্রুপ নামে একটি পোশাক কারখানায় সুইং অপারেটর পদে কাজ করে। অপরদিকে গ্রেফতারকৃত ইকবাল হোসেন ও তার খালাতো বোন ঘোষবাগ এলাকায় একটি ভাড়া বাসার তৃতীয় ও চতুর্থ তলায় থাকতো।

তিনি আরো জানান, গত ১১ জানুয়ারি (শনিবার) দুপুরে ভুক্তভোগি ওই নারী তৃতীয় তলায় তার খালাতো বোনের কক্ষে যান। এসময় কক্ষে তার খালাতো বোনের দেবর ইকবাল ছাড়া কেউ ছিল না। পরে ওই নারীকে একা পেয়ে তার হাত-পা বেঁধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে বখাটে ইকবাল। এ ঘটনায় ভুক্তভোগির অভিযোগের ভিত্তিতে রাতেই ইকবালকে ঘোষবাগ এলাকা থেকে আটক করা হয়। পরে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর রোববার দুপুরে রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হলে এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

অপরদিকে আশুলিয়ার জিরাবো এলাকায় পাঁচ বছর বয়সী শিশু ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, শনিবার বিকেলে জিরাবো এলাকায় বাসার পাশে একটি মাঠে খেলছিলো ভুক্তভোগি শিশু। পরে সন্ধ্যায় বাসায় ফিরে শিশুটি বমি করতে থাকলে স্থানীয় ক্লিনিকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ধর্ষণের বিষয়টি জানান তার পরিবারকে। এরপর সোমবার সকালে তাকে ঢামেক হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক শেখ রিজাউল হক দীপু বলেন, ঘটনাটি শোনার সাথে সাথেই পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে বিস্তারিত এখনো জানা যায়নি।

শেয়ার করুন :

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :