বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

পিরোজপুরে ছেলের নির্যাতন সইতে না পেরে থানায় মা

পিরোজপুর প্রতিনিধি :: পিরোজপুর সদর উপজেলার শংকরপাশা ইউনিয়নের চিথলিয়া গ্রামে ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধা মাকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে তার নিজের সন্তানের বিরুদ্ধে। এ নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে বড় ছেলে মোস্তফা আকনের বিরুদ্ধে পিরোজপুর সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী মা রিজিয়া বেগম (৬৫)। ২২ বছর আগে রিজিয়ার স্বামী ছত্তার আকন মারা যান।

তিনি অভিযোগ করেন, বিভিন্ন অযুহাতে তার ছেলে মোস্তফা তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার পাশাপাশি শারীরিকভাবেও নির্যাতন করে। একাধিকবার তাকে মেরে আহত করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

ওই নারী জানান, তার চার সন্তানের মধ্যে একজন মারা গেছে। মেজ ছেলে মোশারেফ আকন সৌদি আরবে থাকেন এবং ছোট ছেলে মাহবুব আকন কুয়েত থাকেন। বর্তমানে তিনি ছোট ছেলে মাহবুবের সংসারে থাকছেন।

তার অভিযোগ নিজের জমি বিক্রি করে ছোট ছেলেকে বিদেশ পাঠানোর কারণে তার উপর ক্ষিপ্ত হয় মোস্তফা এবং মোশারেফ। এরপর থেকেই তাকে বিভিন্ন সময় কারণে অকারণে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করাসহ মারধর করছে মোস্তফা। এছাড়া মেঝ ছেলে মোশারেফও বিদেশ থেকে ফোন করে তার সাথে খারাপ ব্যবহার করে।
ছেলেদের এই অত্যাচার সইতে না পেরে তিনি গত মঙ্গলবার পিরোজপুর সদর থানায় মোস্তফার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

তবে নিজের মায়ের ওপর কোনো ধরনের নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে মোস্তফা। তিনি জানান, তার মা এবং সে আলাদা বাড়িতে বসবাস করে। এছাড়া তার মায়ের একখণ্ড জমি বিক্রি নিয়ে তার মারা যাওয়া ভাইয়ের স্ত্রীর সঙ্গে দ্বন্দ্ব রয়েছে। এ নিয়ে মাঝে মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়।

মোস্তফার দাবি, সে পরিবারের বড় ছেলে। তাই পরিবারের কারো সাথেই কোনো প্রকার সমস্যা হলেই সে দায় তার ওপর চাপানো হয়।

তবে বৃদ্ধ ওই নারীকে নির্যাতনের বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানান পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নূরুল ইসলাম বাদল। তদন্ত শেষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার করুন :

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :