বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

পিরোজপুরে দাখিল পরীক্ষার্থীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ!

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা ।। পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় রিয়াজ বৈদ্য (৩০) নামে এক বখাটে কর্তৃক বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে চলমান দাখিল পরীক্ষার্থী এক ছাত্রী (১৫) কে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে।

ওই লম্পট বখাটে ধর্ষণের সময় অশ্লীল ভিডিও চিত্র মোবাইলে ধারণ করে। পরে ওই অশ্লীল ভিডিও মোবাইলের মেসেঞ্জারের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিলে এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ধর্ষণের ঘটনা ফাঁস হওয়ায় দাখিল পরীক্ষার্থী লোকলজ্জায় পরীক্ষা দেয়া বন্ধ করে দিয়ে আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে আত্মগোপনে রয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চালিতাবুনিয়া গ্রামের কাঠ মিস্ত্রী হানিফ বৈদ্যর বখাটে পুত্র রিয়াজ বৈদ্য সম্প্রতি একই এলাকার সৌদি প্রবাসীর মেয়ে দাখিল পরীক্ষার্থীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় বখাটে রিয়াজ ধর্ষণের অশ্লীল ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে। পরে ওই ছাত্রীকে বø্যাকমেইল করার জন্য অশ্লীল ভিডিওটি বিভিন্ন মোবাইলের ছড়িয়ে দেয়। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হওয়ার পর ওই দাখিল পরীক্ষার্থী আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে আত্মগোপন করে।

এরপর স্থানীয় একটি মহল ওই বখাটের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা উত্তোলন করে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে। এদিকে ওই অশ্লীল ভিডিও বিভিন্ন মেসেঞ্জারে ছড়িয়ে দিয়ে বখাটে রিয়াজ গা ঢাকা দেয়। স্থানীয় চৌকিদার নিজাম জানান, ওই বখাটে একজন লম্পট প্রকৃতির। তার বিরুদ্ধে একাধিক নারী ঘটিত কেলেঙ্কারীর অভিযোগ রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য কবির হোসেন জানান, এর আগেও বখাটে রিয়াজ দুটি বিয়ে করে তালাক দেয়। মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আ.জ.ম মাসুদুজ্জামান মিলু জানান, খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল।

ধর্ষণের শিকার ওই মেয়েটি ও তার পরিবারের কাউকেই না পাওয়ায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না। তিনি আরও জানান, এ ঘটনার পর অভিযুক্ত বখাটে পলাতক রয়েছে।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :