বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী

অনলাইন ডেস্ক :: ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন আছিয়া আক্তার (২০) নামে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী। বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) ভোরে বগুড়া সদর উপজেলার মঠুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ওসি হুমায়ুন কবির বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) ভোরে ফজরের নামাজের আগে ঘরের বারান্দায় গলায় ফাঁস দিয়ে মেয়েটি আত্মহত্যা করে। তার বাড়িতে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছি। প্রেমঘটিত সমস্যার কারণে ঘটনাটি ঘটে বলে আমরা জানতে পেরেছি। তবে সে কিছুদিন থেকে মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন ছিল বলে জানা গেছে।

আত্মহত্যার আগে ক্ষমা চেয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন আছিয়া। নিজের ফেসবুক ওয়ালে তিনি লেখেন, ‘আমার ব্যবহারে কেউ কোনোদিন কষ্ট পেলে দয়া করে আমায় মাফ করবেন। কারণ, মৃত্যু কার কখন দুয়ারে আসে আমরা কেউ বলতে পারি না। আল্লাহ পাক সবাইকে ভালো রাখবেন।’

নিহত আছিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি বগুড়ার সদর থানার মঠুরা গ্রামের মো. জালাল উদ্দীনের মেয়ে। তিন ভাই-বোনের মধ্যে আছিয়া দ্বিতীয়।

আছিয়ার ভাই আল-আমীন বলেন, আমি প্রায় রাত সাড়ে ১২টা পর্যন্ত বারান্দায় বসে পড়াশোনা করে রাত ১টার দিকে রুমে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ি। পরে মা ফজরের নামাজ পড়ার জন্য ঘুম থেকে জেগে দেখেন আছিয়া বাড়ির বারান্দায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে ঝুলে আছে। পরে আমরা তাকে নামিয়ে থানায় যাই। প্রেমজনিত কারণে আছিয়া আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করছেন তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আবু হেনা পহিল বলেন, বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। আমরা ঘটনাটি সম্পর্কে অবগত আছি এবং ওই শিক্ষার্থীর বাসায় খোঁজ নিয়েছি।

উল্লেখ্য, গত ৬ আগস্ট একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তোরাবি বিনতে হক নিজ বাড়িতে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :