বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

বরিশালে মাছের ঘেরে হা*ম*লা মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক ::: বরিশালের উজিরপুরে মাছের ঘেরসহ পোল্টি খামারে হামলা মামলায় ভাইসহ এক ইউপি চেয়ারম্যানকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) বরিশালের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মাহফুজুর রহমান দুই ভাইকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মামলার অন্য তিন আসামির জামিন মঞ্জুর করেন।

কারাগারে পাঠানো আসামিরা হলেন-উজিরপুর উপজেলার সাতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহিন হাওলাদার এবং তার চাচাতো ভাই ইলিয়াস হাওলাদার।

জামিন পাওয়া তিন আসামি হলেন-সোহেল হাওলাদার, কাইয়ুম ভাট্টি ও শাওন ভাট্টি।

মামলার নথির বরাতে আইনজীবী মুজিবুর রহমান জানান, সাতলা ইউনিয়নের পশ্চিম সাতলা গ্রামের বাসিন্দা ইদ্রিস হাওলাদারের মাছের ঘের, পোল্টি খামার, মাছ-মুরগির খাদ্য, ওষুধ ও কীটনাশকসহ বিভিন্ন ব্যবসা রয়েছে। ইদ্রিস হাওলাদার পশ্চিম সাতলা গ্রামে নতুন একটি মাছের ঘের করার কাজ শুরু করেন। তখন ইউপি চেয়ারম্যান শাহীন হাওলাদারের নেতৃত্বে আসামিরা ইদ্রিসের কাছে এক কোটি টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাঁদা না দেওয়ায় বিভিন্ন সময় আসামিরা হুমকি দেন। গত ১৬ মার্চ গভীর রাতে আসামিরা দেশীয় অস্ত্র, কেরোসিন ও পেট্রোল নিয়ে মাছের ঘেরে হামলা চালান। তারা ঘেরের জন্য বানানো ঘরে রাখা বিভিন্ন মূল্যবান মালপত্র কুপিয়ে ও আগুন দিয়ে পুড়িয়ে নষ্ট করেন। হামলাকারীদের ধাওয়া করলে ব্যবহৃত মাইক্রোবাস ফেলে তারা পালিয়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মাইক্রোবাসটি জব্দ করে। এ ঘটনায় ১৮ মার্চ ইদ্রিস হাওলাদার বাদী হয়ে উজিরপুর মডেল থানায় মামলা করেন। মামলার আসামিরা উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহের জামিন নেন।

মেয়াদ শেষে পাঁচ আসামি আদালতে হাজির হয়ে ফের জামিন চাইলে আদালত ভাইসহ ইউপি চেয়ারম্যানকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। অন্য তিনজনের জামিন মঞ্জুর করেন।

মামলায় এজাহারভুক্ত অন্য সাত আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে আদালত।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp