বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

বাউফলে ইউপি চেয়ারম্যানের লোক হওয়ায় অটোচালককে মারধর

তোফায়েল ইসলাম মিশু, বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :: পটুয়াখালীর বাউফলে ইউপি চেয়ারম্যানের লোক হওয়ায় এক অটোচালককে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার নওমালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ শাহজাদা হাওলাদারের লোক হওয়ার অপরাধে অটোচালক মোঃ কালু মৃধা ( ৩০) কে মারধর করে আহত করা হয়েছে। পরে স্থানীয়রা অচেতন অবস্থায় কালু মৃধাকে উদ্ধার করে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

আহত অটোচালক কালু মৃধা উপজেলার নওমালা ইউনিয়নের বটকাজল গ্রামের মোঃ সোবাহান মৃধার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার নওমালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (একাংশ মেয়র গ্রুপ) শাহজাদা হাওয়াদারকে সমর্থন করেন কালু মৃধা। শাহজাদা হাওলাদারের সভা-সমাবেশেও যায় তিনি। এ কারণে দীর্ঘ দিন যাবত তার উপরে ক্ষিপ্ত উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক(একাংশ এমপি আসম ফিরোজ গ্রুপ) ও নওমালা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কামাল বিশ্বাসের কর্মীরা। আজ বৃহস্পতিবার বেলা আনুমানিক ১১ টার দিকে নওমালা ইউনিয়নের ভাঙ্গা ব্রিজ এলাকায় অটোগাড়ি ঠিক করাতে যান কালু মৃধা। কামাল বিশ্বাস ডাকে ওই কথা বলে কাবিলা, কাউন্টার কবির, বেল্লাল মুন্সি
তাকে ভাঙ্গা ব্রিজ থেকে ১০০ গজ পূর্ব দিকে নিয়ে মারধর করে। এ সময় তারা (কালু মৃধার) সাথে থাকা মোবাইল ফোন ও অটোগাড়ি ঠিক করার জন্য রাখা টাকা ছিনিয়ে নেয়। স্থানীয় কিছু লোকজন কালু মৃধাকে অচেতন অবস্থায় পেয়ে হাসপাতালে নিয়ে আসে এবং তার পরিবারকে খবর দেয়।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় কালু মৃধা বলেন, “আমি শাহজাদা চেয়ারম্যানকে ভালো বাসি এবং তাকে ভোট দেই এটাই আমার অপরাধ। আর এ অপরাধের কারনে কাবিলার নেতৃত্বে কাউন্টার কবির ও বেল্লাল মুন্সিসহ ৭ থেকে ৮ জন লোক আমাকে মারধর করে আমার মোবাইল ফোন,কিছু টাকা ও অটোগাড়ীর চাবি ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে।

এই অভিযোগের অস্বীকার করে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (একাংশ) ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কামাল বিশ্বাস বলেন, ‘আমি খবর নিয়ে জেনেছি অটোগাড়ি দূর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওরে অন্য অটো চালোকরা মারধর করেছে। কালু ভালো ছেলে, আমার গ্রামের ছেল।আমার লোকজন কেন মারবে ওরে! অভিযোগটি সম্পুর্ণ ভিত্তিহীন। এ বিষয়ে বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মোঃ আল মামুন সাংবাদিকদের বলেন, ‘ঘটনা স্থল ও হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।’’

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :