বিএনপি নেতারা কে কোথায় ঈদ করছেন | বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম – বিএনপি নেতারা কে কোথায় ঈদ করছেন বিএনপি নেতারা কে কোথায় ঈদ করছেন – বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম


বিএনপি নেতারা কে কোথায় ঈদ করছেন

প্রকাশ: ৪ জুন, ২০১৯ ৪:০৮ : অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক :: মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতরের বাকি আর মাত্র একদিন। এমন সময় রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা দেয়। কিন্তু বিএনপির রাজনীতিতে এবার আর সেই মাত্রা নেই। দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে। সেখানেই দলীয় প্রধানের টানা তৃতীয় বার ঈদ করতে হচ্ছে। এ কারণেই দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপির নেতাকর্মীদের মনে হাসিখুশি নেই। বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে এমনটাই জানা গেছে।

দলটির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন কারাগারে বন্দি আছেন। তার উপর তিনি গুরুতর অসুস্থ। বারবার বিএনপি নেতারা তার জামিন চাওয়ার পরও জামিন হচ্ছে না অভিযোগ তাদের। অপর দিকে বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডনে অবস্থান করছেন। তাই বিএনপি নেতাকর্মীরা অন্যবারের মতো হাসি-আনন্দে ঈদ উদযাপন করতে পারছেন না।

প্রতিবছর দলীয় চেয়ারপারসনের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়ের মধ্য দিয়ে ঈদ উদযাপন শুরু হয় দলীয় নেতাকর্মীদের। গত বছরের মতো এবার ও তা হচ্ছে না। কারন কারাগারে টানা তৃতীয় ঈদ করতে হচ্ছে দলীয় প্রধানের। তবে নেত্রীর অনুপস্থিতিতে এবার ঈদের নামাজ পর পরই বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন নেতাকর্মীরা।

এরপর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে দলের সিনিয়র নেতারা কারাবন্দি দলটির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করার চেষ্টা করবেন। খালেদা জিয়ার সাথে কারা কর্তৃপক্ষের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছে বলে বিডি২৪লাইভকে জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা শায়েরুল কবির খান।

নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, শীর্ষ নেতাদের মধ্যে অনেকেই থাকবেন ঢাকায়। বাকিরা ইতিমধ্যে নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় চলে গেছেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঈদ করবেন ঢাকাতে। স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ঈদ করবেন ঢাকাতে, ঈদের নামাজ পরে নিজ নির্বাচনী এলাকা কুমিল্লায় যাবেন তিনি। ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ তাঁর নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালী এবং ড. আব্দুল মঈন খানও তার নির্বাচনী এলাকা নরসীংদিতে ঈদ করবেন, লে.জেনারেল (অব:)মাহবুবুর রহমান এবং ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া ঢাকায় ঈদ করবেন। এছাড়া স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী নিজ নির্বাচনী এলাকা চট্টগ্রামে ঈদ করবেন। মির্জা আব্বাস এবং নজরুল ইসলাম খান ওমরা হজ্ব পালনের জন্য সৌদিতে অবস্থান করছেন। স্থায়ী কমিটির এই দুই সদস্য সৌদি আরব ঈদ করবেন। স্থায়ী কমিটির অরেক সদস্য সালাহ উদ্দিন আহমেদ ভারতে আছেন। অনুপ্রবেশের দায়ে সেখানে তার নামে মামলা চলছে। সালাহ উদ্দিন জামিনে থাকলেও দেশ ত্যাগে নিষেজ্ঞা থাকায় তাকে ভারতেই ঈদ করতে হবে।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যানদের মধ্যে শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, বেগম সেলিমা রহমান, ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, শওকত মাহমুদ ও অ্যাডভোকেট আহমেদ আযম খান ঢাকায় ঈদ করবেন। আলতাফ হোসেন চৌধুরী নিজ এলাকা পটুয়াখালী, এম মোর্শেদ খান, আবদুল্লাহ আল নোমান, মীর মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন তাদের নির্বাচনী এলাকা চট্টগ্রামে ঈদ করবেন। ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বরিশালে এবং শামসুজ্জামান দুদু চুয়াডাঙ্গায় ঈদ করবেন বলে জানিয়েছেন। ঢাকার সাবেক মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা এ মুহূর্তে চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে আছেন। সপরিবারে তিনি সেখানেই ঈদ করবেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাবিহ উদ্দিন আমেদ, রিয়াজ রহমান, সুকোমল বড়ুয়া থাকছেন ঢাকায়।

দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গত বছরের মতো এবার ও ঈদ করবেন। যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরী ও হাবিব উন নবী খান সোহেলকে কারাগারে ঈদ করতে হচ্ছে। যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন ঢাকায়, মজিবুর রহমান সরোয়ার বরিশালে, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল ঢাকায়, খায়রুল কবির খোকন নরসিংদী ও হারুন-অর রশিদ চাঁপাইনবাবগঞ্জে ঈদ করবেন।

দলের সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স, ময়মনসিংহ এবং ফরিদপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ ফরিদপুরে ঈদ করবেন। যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব ঢাকায়, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দীন টুকু কারাগারে ঈদ করবেন।