বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম – বোমা ভেবে রাতভর পাহারা, সকালে উদ্ধার হলো বেগুন
প্রকাশিতঃ May 15, 2019 5:10 PM
A- A A+ Print

বোমা ভেবে রাতভর পাহারা, সকালে উদ্ধার হলো বেগুন

অনলাইন ডেস্ক : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) আইন অনুষদ ভবনের সামনে ‘বোমা পড়ে আছে’। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে ক্যাম্পাস জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক। ছুটে যায় পুলিশ। ঘটনাস্থলের আশপাশ ঘিরে রাখা হয়। কিন্তু কোনোভাবেই বুঝা যাচ্ছিল না এটি আসলে কী।

শেষে ডাক পড়ে সিএমপির বোম্ব ডিস্পোজাল ইউনিটের। শুক্রবার সকালে এ দলের সদস্যরা ঘটনাস্থলে হাজির হন। বোমা নিষ্ক্রিয়করণ যন্ত্রপাতির সহায়তা নিয়ে কাজে নেমে পড়েন।

সব আয়োজন শেষে বেলা ১১টার দিকে বোমা সদৃশ বস্তুটি নিষ্ক্রিয় করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু না। সেটি আর বিস্ফোরণ হয় না। শেষমেশ কালো ট্যাপে মোড়ানো বস্তুটি খুলে দেখা যায়, সেটি আসলে একটি বেগুন! এর দুই পাশে ইলেকট্রিক তার ছিল।

অভিযানের নেতৃত্বে থাকা সিএমপি বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের পরিদর্শক রাজেশ বড়ুয়া বলেন, এটি কোনো বোমা ছিল না৷ দূর থেকে ফাটানোর পর দেখা গেল সেটি আসলে একটি বেগুন। ক্যাম্পাসে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে কেউ এমনটা করেছে।

হাটহাজারী থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর জানান, ক্যাম্পাসে আতঙ্ক সৃষ্টি করার জন্য একটি চক্র বেগুনের উপরে কালো টেপ দিয়ে মুড়িয়ে চারটি তার দিয়ে রাখে। প্রথমে আমরা বোমা বলে ধারণা করলেও পরে এটি ভুয়া প্রমাণিত হয়। কেউ বেগুন দিয়ে বোমা তৈরি করে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে এ কাজ করেছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যে বা যারাই করে থাকুক দ্রুত খুঁজে বের করা হবে।

 বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম

বোমা ভেবে রাতভর পাহারা, সকালে উদ্ধার হলো বেগুন

Wednesday, May 15, 2019 5:10 pm

অনলাইন ডেস্ক : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) আইন অনুষদ ভবনের সামনে ‘বোমা পড়ে আছে’। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে ক্যাম্পাস জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক। ছুটে যায় পুলিশ। ঘটনাস্থলের আশপাশ ঘিরে রাখা হয়। কিন্তু কোনোভাবেই বুঝা যাচ্ছিল না এটি আসলে কী।

শেষে ডাক পড়ে সিএমপির বোম্ব ডিস্পোজাল ইউনিটের। শুক্রবার সকালে এ দলের সদস্যরা ঘটনাস্থলে হাজির হন। বোমা নিষ্ক্রিয়করণ যন্ত্রপাতির সহায়তা নিয়ে কাজে নেমে পড়েন।

সব আয়োজন শেষে বেলা ১১টার দিকে বোমা সদৃশ বস্তুটি নিষ্ক্রিয় করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু না। সেটি আর বিস্ফোরণ হয় না। শেষমেশ কালো ট্যাপে মোড়ানো বস্তুটি খুলে দেখা যায়, সেটি আসলে একটি বেগুন! এর দুই পাশে ইলেকট্রিক তার ছিল।

অভিযানের নেতৃত্বে থাকা সিএমপি বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের পরিদর্শক রাজেশ বড়ুয়া বলেন, এটি কোনো বোমা ছিল না৷ দূর থেকে ফাটানোর পর দেখা গেল সেটি আসলে একটি বেগুন। ক্যাম্পাসে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে কেউ এমনটা করেছে।

হাটহাজারী থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর জানান, ক্যাম্পাসে আতঙ্ক সৃষ্টি করার জন্য একটি চক্র বেগুনের উপরে কালো টেপ দিয়ে মুড়িয়ে চারটি তার দিয়ে রাখে। প্রথমে আমরা বোমা বলে ধারণা করলেও পরে এটি ভুয়া প্রমাণিত হয়। কেউ বেগুন দিয়ে বোমা তৈরি করে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে এ কাজ করেছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যে বা যারাই করে থাকুক দ্রুত খুঁজে বের করা হবে।

সম্পাদক ও প্রকাশক : খন্দকার রাকিব ।
ফকির বাড়ি, ৫৫৪৫৪ বরিশাল।
মোবাইল: ০১৭২২৩৩৬০২১
ইমেইল : [email protected], [email protected]