বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

ভোজ্যতেলের সংকটে অভিযান চলছে সারাদেশে

অনলাইন ডেস্ক ::: ভোজ্যতেলের সংকটে সারাদেশ। কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করছে গুটিকয়েক ব্যবসায়ী। লক্ষ্য অধিক মুনাফা। তার বিরুদ্ধে সারাদেশে চলছে আইনশৃংখলা বাহিনীর অভিযান। সঙ্গে আছে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। বাজারে স্বস্তি ফিরিয়ে আনতে জব্দ হয়েছে লাখ লাখ লিটার তেল। সতর্ক করতে ব্যবসায়ীরা হচ্ছেন জরিমানার মুখোমুখি।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশ পাবনার দিলালপুরে তেল ব্যবসায়ী উত্তম কুমার কুন্ডুর গোডাউনে অভিযান চালায়। জব্দ করে ৪৬ হাজার ৪০০ লিটার ভোজ্যতেল। পরে ভ্রাম্যমান আদালত দেড় লাখ টাকা জরিমানা করেন।

নাটোরের বড়াইগ্রামের মৌখাড়া বাজারে পৌর মেয়র মাজেদুল বারী নয়নের গোডাউন থেকে জব্দ হয় ৩ হাজার লিটার সয়াবিন। জরিমানা করা হয় ১ লাখ টাকা। পাশের আরেকটি দোকানীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে জেলা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিকার। বাজারে অস্থিরতা তৈরির অভিযোগে অভিযান চলবে, জানালেন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক।

ময়মনসিংহের ত্রিশালে তেল সংরক্ষণ, বেশী দামে বিক্রি ও পণ্যের মূল্য তালিকা না রাখায় তামিম এন্টারপ্রাইজ, ফিরোজ স্টোর ও আজিজুল স্টোরকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় সয়াবিন ও পামওয়েল মজুদ শেষে বাড়তি দরে বিক্রির অভিযোগে দুটি প্রতিষ্ঠানকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

চট্টগ্রামে হালিশহরে পুলিশের এক এএসআইয়ের দোকান থেকে ১ হাজার ১৫ লিটার ভোজ্যতেল জব্দ হয়। জরিমানা হয় ২ লাখ টাকা জরিমানা। সীলগালা করা হয় ওই দুটি দোকানে।

ফেনীতেও পৌর হকার্স মাকেট ও বড় বাজারে পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুটি প্রতিষ্ঠান জরিমানা দেয় ৬০ হাজার টাকা।

খুলনার বড়বাজারের যৌথ অভিযানে সাহা ট্রেডার্সে ৩১ হাজার ৬০০ লিটার এবং ৬৩ হাজার ৩০০ লিটার পাম অয়েল তেল মজুদ পায় রেব ও জেলা প্রশাসন। প্রতিষ্ঠানটিকে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আরো বড় দুটি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে প্রায় ১ লাখ ২৭ হাজার ৭২০ লিটার তেল জব্দ করা হয়। জরিমানা করা হয় ৭০ হাজার টাকা

এছাড়াও ঝালকাঠি, বাগেরহাট, রাজশাহীর বানেশ্বরসহ দেশের বিভিন্ন জেলার অভিযানে জরিমানাসহ ভোজ্য বিপুল পরিমাণ ভোজ্য তেল আটক করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp