বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

মঠবাড়িয়ায় ঝুলে আছে ২ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি :: স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের বিজেপি প্রজেক্টের আওতায় সাপলেজা-বান্ধবপাড়া দেড় কি.মি. সড়কের উন্নয়ন কাজ শুরু হয় ১৬. ০৭.২০১৯ খ্রি. তারিখে। পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নের গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটির কার্পেটিং কাজ (আংশিক) শেষ হওয়ার কথা ১৫.০৭.২০২০ খ্রি. তারিখে। কাজ শেষ হয় ঠিকই। তবে কার্পেটিং নয়। শুধু বালি আর খোয়া দিয়েই থেমে যায় ১ কোটি ৭১ লক্ষ ৫১ হাজার ১ শত ৭ টাকার টেন্ডার হওয়া এ উন্নয়ন কাজ।

ওয়ার্ক অর্ডারে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে উল্লেখ রয়েছে ইফতি ইটিসিল (প্রাঃ) লিমিটেড, ভান্ডারিয়া, পিরোজপুরের নাম। ওয়ার্ক অর্ডার মেমো নং ৪৬.০২.৭৯০০.০০০.১৪.০০১.১৯-১২২৫।

স্থানীয়দের অভিযোগ, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সুনির্দিষ্ট কোন কারন ছাড়াই সড়কটিতে এক বছর ধরে কাজ বন্ধ রেখেছে। গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটির কাজ ফেলে রাখায় সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে। সড়কটির উন্নয়ন কাজে অনিয়মের অভিযোগও শোনা যাচ্ছে।

মূল ঠিকাদার কাজ বিক্রি করে দেওয়ায় সাব ঠিকাদার সঠিকভাবে কাজ না করায় এ ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হয় বলে মনে করছেন অনেকেই। আবার কখনো কখনো সাব ঠিকাদার বিল না পাওয়ায় কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয় বলেও জানা যায়।

এছাড়াও সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীদের সাথে ঠিকাদারের যোগসাজশ থাকায় কাজ না করেও পার পেয়ে যান তারা। অধিকাংশ ঠিকাদার রাজনীতিক হওয়ায় কোথাও জবাবদিহিতা করতে হয় না তাদের।

সাব ঠিকাদার ও টিকিকাটা ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম জানান, বর্ষার দিনে কাজ করা সম্ভব নয়। আগামী চৈত্র মাসের দিকে অসম্পন্ন কাজ সম্পন্ন করা হবে।

মূল ঠিকাদার ও ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিরাজুল ইসলামকে একাধিকবার ফোন দিয়েও তাকে না পাওয়ায় এ ব্যাপারে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

উপজেলা প্রকৌশলী আবু সাইদ মো. কাজী জসিম জানান, করোনার অতিমারিকে আর্থিক সংকটের কারনে কাজ বাস্তবায়ন করা সম্ভব হচ্ছে না।

স্থানীয় সাংসদ ডাঃ রুস্তম আলী ফরাজী জানান, বিষয়টি অবগত আছি। সড়কটির কাজ দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বারবার তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :