মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শতভাগ নিরপেক্ষ থেকে দায়িত্ব পালন করতে চাই : পুলিশ সুপার | বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম – মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শতভাগ নিরপেক্ষ থেকে দায়িত্ব পালন করতে চাই : পুলিশ সুপার মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শতভাগ নিরপেক্ষ থেকে দায়িত্ব পালন করতে চাই : পুলিশ সুপার – বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম

মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শতভাগ নিরপেক্ষ থেকে দায়িত্ব পালন করতে চাই : পুলিশ সুপার

প্রকাশ: ১২ জুন, ২০১৯ ৪:৩৩ : অপরাহ্ণ

পিরোজপুর থেকে মো. শাহজাহান :: আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া থানা কম্পাউন্ডে বুধবার সকাল ১০ ঘটিকায় কমিউনিটি পুলিশিং, আইন – শৃঙ্খলা ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়ে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত সভায় মঠবাড়িয়া থানার ওসি সৈয়দ আব্দুল্লাহর সভাপতিত্বে এবং এস আই রাজিবের সন্ঞ্চালনায় পিরোজপুর জেলার পুলিশ সুপার (ভারপ্রাপ্ত) মোল্লা আজাদ হোসেন প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্হিত নির্দেশনা প্রদান করেন।

পুলিশ সুপার (ভারপ্রাপ্ত) মোল্লা আজাদ বলেন,”যারা আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটাতে চান, সরকারের ভাববমূর্তি ক্ষুন্ন করতে চান তাদেরকে ধরে নেব তারা স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি।
মঠবাড়িয়া নিয়ে যে বদনাম, মঠবাড়িয়াকে নিয়ে যে কলঙ্ক করা হয়েছে তা ঘুঁচাতে চাই। আমি চাই পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলা একটি শ্রেষ্ঠ উপজেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হোক।”

প্রার্থী এবং নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,” বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আপনারা পার পাবেন না। আমরা যদি পার না পাই তাহলে আপনারাও পার পাবেন না।

তিনি আরো বলেন, আমরা সবাইকে সাথে নিয়ে নিরপেক্ষভাবে সবার উপস্হিতিতে, সরব নির্বাচন সম্পন্ন করতে চাই। শতভাগ নিরপেক্ষ থেকে দায়িত্ব পালন করতে চাই। শুধু আমাদের একটি দাবি – আমাদের মুখ এবং বুক যেন একই কথা বলে।”
মঠবাড়িয়াবাসীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “আমরা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী। সংবিধানের কোথাও লেখা নেই কর্মকর্তা। আমরা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী আর আপনারা রাষ্ট্রের মালিক। কোন জায়গায় কর্মচারী যদি মালিককে মারে সেটা কী শোভনীয় দেখায়? এটা লজ্জাজনক।

আপনাদের সেবা করতে চাই, আপনাদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত করতে চাই, আপনাদের যে আমানত সেটি যাতে আপনারা ব্যবহার করতে পারেন সে অধিকার নিশ্চিত করার জন্য যা যা করা দরকার রাষ্ট্রের সে অর্পিত দায়িত্ব পালন করব আপনাদের জন্য।

আপনাদের যাতে কোন ক্ষয় -ক্ষতি না হয়, একটি প্রানও যাতে বিসর্জন না যায়, নষ্ট না হয় সে জন্য আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।”

সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করার লক্ষ্যে তিনি বলেন, “এদেশকে ভালবাসি,মঠবাড়িয়াবাসীকে ভালবাসি,সুষ্ঠভাবে মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন করা আমাদের দায়িত্ব।

আমি কিন্তু সাহসী লোক। চ্যালেন্জ করে যাচ্ছি, কেউ ঝামেলা করার চেষ্টা করবেন না। আমরা মুক্তিযুদ্ধ করতে পারি নাই। কিন্তু আকাম- কুকাম, নৈরাজ্য, জঙ্গিবাদ ও অপশক্তির বিরুদ্ধে আমাদের দায়িত্ব রয়ে গেছে এখনও। মহান আল্লাহর উপড়ও আস্হা রাখতে হবে। আল্লাহ চানতো মঠবাড়িয়ায় ১৮ জুন একটি সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।”

এসময় মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) উপস্হিত ছিলেন।

মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিএম সরফরাজ বলেন,”মঠবাড়িয়া ইউনিয়নের প্রতিটি ইউনিয়নে দুইজন করে ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন।একজন বিভাগীয় কমিশনার থাকবেন।মঠবাড়িয়াকে ঝুঁকিপূর্ন হিসেবে বিজিবির সংখ্যাও দ্বিগুন বাড়ানো হয়েছে।সহকারী প্রিজাইডিং হিসেবে আমি নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করব।”

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়িয়া সার্কেল) হাসান মোস্তফা স্বপন।

অনুষ্ঠান বিষয় সংক্রান্ত মতামত ব্যক্ত করে বক্তব্য রাখেন,মঠবাড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি,পৌর মেয়র রফিউদ্দিন আহমেদ ফেরদৌস,সিনিয়র সহ- সভাপতি আরিফুল হক,সহ- সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা শাহ আলম দুলাল,মুক্তিযোদ্ধা এমাদুল হক খান,মঠবাড়িয়া আইনজীবি সমিতির সভাপতি এ্যাড.মজিবুর রহমান মুন্সী,পিরোজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি টিটু,সম্পাদক তানভির আহমেদ,মঠবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহিদ উদ্দিন পলাশ,সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজু,মঠবাড়িয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সেক্রেটারী হারুন অর রশীদ প্রমুখ।

প্রার্থীগনের মধ্যে প্রথমে বক্তব্য রাখেন-মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মাকসুদা আক্তার বেবি।এরপর পর্যায়ক্রমে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আরিফুর রহমান সিফাত,ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী শাকিল আহমেদ নওরোজ, উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ এবংউপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হোসাইন মোশারেফ সাকু।

সভাপতির বক্তব্যে ওসি সৈয়দ আবদুল্লাহ বলেন, ১৮ জুন ২০১৯ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাধ,সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ হবে ইনশাল্লাহ।আগামীকাল মঠবাড়িয়ায় ৪ শত পুলিশ আসবে। র‌্যাব, বিজিবি, গোয়েন্দা সংস্হাসহ পর্যাপ্ত আইন- শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দুই/একদিনেই মঠবাড়িয়ায় চলে আসবে।”
উল্লেখ্য যে, গত ৩১ মার্চ মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনিষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু হঠাৎ নির্বাচনী পরিবেশ বিনষ্ট হওয়ার কারণে ৪র্থ ধাপের এ নির্বাচন স্হগিত করা হয়েছিল।