বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

মাত্র তিন দিনেই নতুন গ্রহ আবিষ্কার করলেন নাসার কিশোর শিক্ষানবিশ

Print Friendly, PDF & Email

মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসায় ইন্টার্নশিপ শুরুর তৃতীয় দিনে নতুন একটি গ্রহ আবিষ্কার করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের এক কিশোর। ১৭ বছর বয়সী এই কিশোরের এমন কীর্তি বিশ্বের গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচার করা হচ্ছে।

দেশটির ম্যারিল্যান্ডের গ্রিনবেল্টের সরকারি সংস্থা গব্বার্ড স্পেস ফ্লাইট সেন্টারে ইন্টার্নশিপ শুরু করেছিলেন উলফ কুকিয়ার (১৭) নামের ওই কিশোর। কাজের একেবারে শুরুতেই (মাত্র তৃতীয় দিনে) এমন আবিষ্কারের মাধ্যমে ব্যাপক চমক সৃষ্টি করেছেন উলফ।

ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল বলছে, মহাকাশে নাসার অ্যালিয়েন খোঁজার টেলিস্কোপ টিইএসএস ব্যবহার করেছেন কুকিয়ার। এ সময় তিনি পৃথিবী থেকে ১ হাজার ৩০০ আলোকবর্ষ দূরে একটি গ্রহের সন্ধান পান; যেটি একজোড়া নক্ষত্র প্রদক্ষিণ করছিল।

নতুন এই গ্রহের নামকরণ করা হয়েছে টিওআই ১৩৩৮ বি নামে; যা পৃথিবীর চেয়ে সাতগুণ বড়, শনি এবং নেপচুনের আকারের চেয়ে ছোট। কুকিয়ার নতুন এই গ্রহের সন্ধান পেয়েছেন পিক্টর নামের নক্ষত্রমণ্ডলীতে। নাসার বিজ্ঞানীরা এখন বলেছেন, টিওআই ১৩৩৮ বি গ্রহটি প্রত্যেক ৯৩ থেকে ৯৫ দিনে একজোড়া নক্ষত্রকে প্রদক্ষিণ করছে।

স্টার ওয়ার্সের প্রচণ্ড ভক্ত ও যুক্তরাষ্ট্রের হাইস্কুলের সিনিয়র শিক্ষার্থী কুকিয়ার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনবিসিকে বলেন, গ্রহটি কিছুটা কাল্পনিক সাই-ফি সিরিজের মতো। তিনি বলেন, আমি একটি গ্রহ আবিষ্কার করেছি, যার দুটি নক্ষত্র আছে। এই দুটি নক্ষত্রের চারদিকে গ্রহটি প্রদক্ষিণ করে। সুতরাং আপনি যদি স্টার ওয়ার্সের ট্যাটুনি ও লিউক হোমওয়ার্ল্ডের মতো ভাবেন; তাহলে এটি সেরকমই।

তবে প্রকৃত তথ্য এসেছে নাসার ট্রানসিটিং এক্সোপ্ল্যানেট সার্ভে স্যাটেলাইট (টিইএসএস) থেকে। এই স্যাটেলাইট ২৭ দিন ধরে নজরদারির মাধ্যমে প্রতি ৩০ মিনিট পর পর নতুন নতুন ছবি তোলে। এই সময়ে হাজার হাজার ছবি তোলে টিইএসএস। যা পরবর্তীতে টিইএসএসের সিটিজেন সায়েন্স ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়। যেখানে গবেষকরা সম্ভাব্য গ্রহের অবস্থান খুঁজতে থাকেন।

কুকিয়ারও একইভাবে টিইএসএসের পাঠানো ছবি বিশ্লেষণ করে নতুন গ্রহ শনাক্তের দাবি করেন। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থার সঙ্গে প্রথমবার শিক্ষানবিশ হিসেবে কাজ করতে এসে গ্রহ আবিষ্কারের বিরল কীর্তি গড়েন এই কিশোর।

সিএনবিসিকে তিনি বলেন, আমার ইন্টার্নশিপের তৃতীয় দিনে গিয়ে আমি একটি সিগন্যাল দেখতে পাই। প্রথমে আমি ভেবেছিলাম, এটা কোনও নক্ষত্র গ্রহণ। কিন্তু ওই সময়কাল সঠিক ছিল না। পরে এটি একটি গ্রহ হিসেবে শনাক্ত করা হয়।

যুগান্তকরী এই আবিষ্কারের পর খ্যাতির স্বাদ পেতে শুরু করেন কুকিয়ার। চলতি সপ্তাহে মার্কিন সংবাদমাধ্যম এবিসির লাইভ অনুষ্ঠানে দেখা যায় তাকে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী দৈনিক নিউইয়র্ক টাইমসে তার এই আবিষ্কারের খবর প্রকাশ করা হয়।

কুকিয়ার বর্তমানে দেশটির একটি হাই স্কুলের সিনিয়র শিক্ষার্থী। সম্প্রতি কলেজে ভর্তির জন্য আবেদন করেছেন তিনি। তবে তার পছন্দের শীর্ষে রয়েছে প্রিন্সটন, স্টানফোর্ড ও এমআইটির মতো জগৎ বিখ্যাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।কুকিয়ারের আবিষ্কৃত নতুন এই গ্রহের ব্যাপারে চলতি সপ্তাহে আরও বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছে নাসা।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *