বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

মৃত রোগীকে সদর হাসপাতালে রেফার্ড!

অনলাইন ডেস্ক :: অপারেশন থিয়েটারে অক্সিজেন খুলে ফেলায় এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন স্বজনরা। তবে নবজাতকটি সুস্থ আছে।

এ ঘটনায় ওই হাসপাতালের মালিক সোহেল রানাকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার রাত ৮টার দিকে ঝিনাইদহ শহরের রাবেয়া হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় নিহতের স্বজনরা হাসপাতাল ঘেরাও করলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মুক্তা নামের ওই প্রসূতি শৈলকুপা উপজেলার গাবলা গ্রামের শিমুল হোসেনের স্ত্রী।

মুক্তার স্বামী শিমুল হোসেন জানান, প্রসব বেদনা শুরু হওয়ার পর সিজারের জন্য ঝিনাইদহ শহরের রাবেয়া হাসপাতালে দুপুরে ভর্তি করা হয়। এরপর বিকেল ৫টার দিকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, অপারেশন থিয়েটারে আমার স্ত্রীর অক্সিজেন খুলে দেয়ার কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। এরপর সন্ধ্যায় ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ একটি অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে এসে রোগীকে কুষ্টিয়ায় নিয়ে যেতে বলেন। আমরা কুষ্টিয়ায় নিতে রাজি না হলে জোর করেই ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে মৃত অবস্থায় পাঠিয়ে দেন।

এদিকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জানান, ওই প্রসূতিকে মৃত অবস্থায় সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে।

সিজারিয়ান ডাক্তার সাজ্জাদ রোহিণীকে এ ঘটনার পর থেকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। পরবর্তীতে তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন দিয়েও ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, সন্ধ্যায় আমরা খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে ওই হাসপাতালে মালিক সোহেল রানাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসি।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :