সমন্বয় সভা রেখে শাপলা বিল ভ্রমনে শিক্ষা কর্মকর্তারা! | বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম – সমন্বয় সভা রেখে শাপলা বিল ভ্রমনে শিক্ষা কর্মকর্তারা! সমন্বয় সভা রেখে শাপলা বিল ভ্রমনে শিক্ষা কর্মকর্তারা! – বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম

সমন্বয় সভা রেখে শাপলা বিল ভ্রমনে শিক্ষা কর্মকর্তারা!

প্রকাশ: ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৭:২৯ : অপরাহ্ণ

নাসির শরীফ, উজিরপুর প্রতিনিধি :: বরিশাল জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আঃ লতিফ মজুমদার উজিরপুরে মাসিক সমন্বয় সভা রেখে উপজেলা শিক্ষা অফিসার তাসলিমা বেগম ও শিক্ষক সমিতির একটি গ্রুপ সাথে নিয়ে লাল শাপলার বিল দেখতে যাওয়ায় শিক্ষকদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষকদের নির্ধারিত মাসিক সমন্বয় সভা সকাল ১০ টায় শুরু হয়। কিন্তু জেলা শিক্ষা অফিসার,উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে নিয়েসকাল ৯ টা থেকে ২ টা পর্যন্ত সমন্বয় সভায় উপস্থিত না হয়ে উপজেলা শিক্ষক সমিতির একটি গ্রুপের সভাপতি জাহাঙ্গির কবির মামুন, সাধারন সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন ঐ সমিতির সদস্য খোকন চন্দ্র নাগ, বঙ্কিম চন্দ্র ঘোষ, অজিত কুমার রায়,আলঙ্গীর হোসেন, সুখদেব বিশ্বাস, বিপুল দাসকে নিয়ে সাতলার লাল শাপলা বিল দেখতে যান।

তবে পশ্চিম কালবিলা কালিবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হারতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন জেলা শিক্ষা অফিসার। পরে বিকেল আড়াইটায় উপজেলা পরিষদের নবনির্মিত সভাকক্ষে মাসিক সমন্বয় সভায় জেলা শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা শিক্ষা অফিসার উপস্থিত হন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুৃক একাধিক শিক্ষক জানান বিলুপ্ত হওয়া বিতর্কিত শিক্ষক সমিতির নেতাদের নিয়ে সমন্বয় সভা রেখে কর্মকর্তারা লাল শাপলার বিল ও স্কুল পরিদর্শনে যাওয়া কোনক্রমেই সমীচীন নয়। এ কারনে সভায় বিশৃংখলা সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আঃ লতিফ মজুমদার জানান, সমন্বয় সভা সকাল ১০ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত সহকারী শিক্ষা অফিসাররা ক্লাস্টার বেইজ আলোচনা করবেন। কর্মকর্তারা সমাপনী দিক নির্দেশনা মূলক আলোচনা করবেন। লাল শাপলা বিল দেখে দুটি বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছি।

তবে এই উপজেলায় শিক্ষক সমিতি নিয়ে গ্রুপিং আছে কিনা তা আমার জানা নেই।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার তাসলিমা বেগম জানান, ডিপিইও স্যারকে নিয়ে স্কুল পরিদর্শনে গিয়েছিলাম। আমি এই উপজেলায় নতুন আসায় কতিপয় শিক্ষক পথ প্রদর্শক হিসেবে আমাদের সাথে ছিল। তবে তাদেরকে পরে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।