বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

সাধু বাবা সেজে পরিবারের সবাইকে অচেতন করে স্বর্ণালঙ্কার লুট

অনলাইন ডেস্ক :: চাঁদপুর মতলব উত্তর উপজেলায় সাধু বাবা সেজে একই পরিবারের তিনজনকে অচেতন করে স্বর্ণালঙ্কার লুটের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (৪ নভেম্বর) দিবাগত রাতে চৌমহনী উত্তর দুর্গাপুর গ্রামের শীল বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগীরা হলেন- দুর্গাপুর গ্রামের শীলবাড়ির খোকন শীল (৪৫), তার স্ত্রী ঝর্ণা শীল (৩৪) ও ছেলে মিঠুন শীল (২০)। ভোররাতেই অচেতন অবস্থায় আত্মীয়-স্বজনরা তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ভুক্তভোগীদের স্বজনরা জানান, দু-তিনদিন ধরে গামছা পরিহিত দাড়িওয়ালা একজন বৃদ্ধ লোকনাথের বেশে সাধু বাবা সেজে ঘোরাঘুরি করছিলেন। রাতে ওই ব্যক্তি খোকন শীলের ঘরে যান এবং তাদের পরিবারের উন্নতির জন্য ঝাড়ফুঁক ও জলপড়া দেন। রাতে খাওয়ার কথা বললে তিনি কিছুই খাননি। তাকে ওই ঘরেই থাকতে দেয়া হয়।

রাত ৪টার দিকে বাসনা রাণী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাইরে বের হয়ে দেখেন তার দেবর খোকন শীলের ঘরের দরজা খোলা। তিনি তাদের ডাকতে ঘরে ঢুকে দেখেন তারা সবাই অজ্ঞান হয়ে পড়ে আছেন। ঘরের স্টিলের আলমারি, কম্বলসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র এলোমেলো। সাধু বাবা ঘরের কোথাও নেই। পরে তিনি চিৎকার করলে বাড়ির অন্য লোকজন এগিয়ে এসে তাদের অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে বুঝতে পারেন ঝর্ণা শীলের কানের স্বর্ণের দুল ও নাক ফুল নেই। পরিবারের সবাই অচেতন থাকায় ঘরের আরও কী কী লুট হয়েছে তা বুঝে জানা যায়নি।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সুজাউদ্দৌলা রুবেল জানান, হাসপাতালে তিনজন রোগী অচেতন অবস্থায় ভর্তি হয়েছেন। তাদের চিকিৎসা চলছে।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :