বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার কারণ জানালেন পাষণ্ড স্বামী

অনলাইন ডেস্ক :: জমির সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে স্ত্রী মনোয়ারা বেগমকে গলা কেটে হত্যা করেন পাষণ্ড স্বামী। এরপর লাশ ধানখেতে ফেলে রাখেন।

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার মীরনগর গ্রামে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে।

মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) ঘাতক স্বামী ছিদ্দিক আলী হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। এ সময় তিনি হত্যার রোমহর্ষক বর্ণনা দেন।

স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা জানান, প্রতিবেশী মিষ্টার মিয়া, সালাম মিয়া গংদের সঙ্গে জমির সীমানা নির্ধারণ নিয়ে বিরোধ চলছিল ছিদ্দিক আলীর। প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে স্ত্রী মনোয়ারাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন তিনি।

শনিবার (১৪ নভেম্বর) রাত ১২টার দিকে কৌশলে আবু লালের ধানের জমিতে নিয়ে যান স্ত্রীকে। সেখানে দা দিয়ে গলায় আঘাত করলে মনোয়ারা বেগম ড্রেনে পড়ে যান। পরে গলায় দা চালিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে বাড়ি চলে যান।

খবর পেয়ে পুলিশ রোববার (১৫ নভেম্বর) ধানী জমির ড্রেন থেকে মনোয়ারা বেগমের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে।

পরে পুলিশ সুপারের তত্ত্বাবধানে পুলিশের একাধিক টিম তদন্তে নামে। সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয় নিহতের স্বামী ছিদ্দিক আলীকে। ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের আদ্যোপান্ত স্বীকার করেন তিনি। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতেই অভিযান চালিয়ে তার ঘর থেকে হত্যায় ব্যবহৃত দা উদ্ধার করা হয়েছে।

ওই ঘটনায় সোমবার (১৬ নভেম্বর) নিহত মনোয়ারা বেগমের ভাই মো. খালেক মিয়া বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :