বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

স্ত্রী বাপের বাড়ি চলে যাওয়ায় শ্যালিকাকে অপহরণ করলেন দুলাভাই

অনলাইন ডেস্ক :: খুলনায় দুলাভাই কর্তৃক শ্যালিকাকে অপহরণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। অপহৃত শ্যালিকা (১৫) নগরীর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

এ ঘটনায় খানজাহান আলী থানায় দুলাভাইসহ পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। কিন্তু ১৬ দিনেও অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, নগরীর খানজাহান আলী থানার শিরোমণি পূর্বপাড়ার এক তরুণীর (২০) সঙ্গে ফুলতলা উপজেলার দামোদর গ্রামের রুহুল আমিন সরদারের ছেলে আলফাজ আহম্মেদের বিয়ে হয়।

বিয়ের সময় আলফাজ ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করার কথা জানান। কিন্তু বিয়ের পরে জানা যায় বেকার এবং বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকাণ্ডে জড়িত। বিষয়টি জানতে পেরে তার স্ত্রী বাবার বাড়ি চলে যান।

এ কারণে আলফাজ ফোনে স্ত্রীকে হুমকি দিয়ে বলেন বাড়ি না এলে তোমার ছোট বোনকে অপহরণ করব। ১৪ নভেম্বর শ্যালিকা কলেজের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে বাড়ি থেকে বের হয়। পরে বাড়িতে ফেরায় আত্মীয়-স্বজনদের বাড়িতে খোঁজ নিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

পরে জানা যায় দুলাভাই আলফাজ সরদার, জুয়েল সরদার ও সোহাগ হোসেনসহ কয়েকজন তাকে অপহরণ করে সিএনজিতে করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় ১৯ নভেম্বর আলফাজের শাশুড়ি মামলা করেন।

একই সঙ্গে মেয়েকে উদ্ধারের জন্য র‌্যাব-৬-এর কাছে অভিযোগ দেন বাবা। কিন্তু ঘটনার ১৬ দিন পার হলেও অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধার কিংবা আসামিদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

অপরদিকে, অভিযুক্ত আলফাজের বিরুদ্ধে তার স্ত্রী বাদী হয়ে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক দাবির অভিযোগ এনে আদালতে মামলা করেছেন।

খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রবীর কুমার বিশ্বাস বলেন, এ ঘটনায় আলফাজ সরদারের ছোট ভাই জুয়েল সরদারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতার ও অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :