বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

Print Friendly, PDF & Email

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু, বদলে দেয়া হয় সন্তানও

অনলাইন ডেস্ক :: হবিগঞ্জে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে কর্তৃপক্ষের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। শুধু তা-ই নয়, বদলে দেয়া হয়েছিল সন্তানও।

ছিলনা ডাক্তার, নার্স। ভুক্তভোগীদের আটকে রেখে কয়েক ঘণ্টা পর খুলে দেয়া হয় মেইন গেইট।

সরেজমিনে ভুক্তভোগীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, জেলার চুনারুঘাটের পূর্ব পাকুরিয়া গ্রামের মো. ওয়াসিম মিয়া পেশায় একজন গাড়ি চালক। বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) গর্ভবতী স্ত্রী সুমি আক্তারের সিজার করানোর জন্য হবিগঞ্জ শহরের কোর্ট স্টেশন এলাকায় দি জাপান ডায়গনস্টিক সেন্টার অ্যান্ড হাসপাতালে নিয়ে আসেন। রাত ২টায় তার সিজার করানো হয়।

মৃত নবজাতকের বাবা মো. ওয়াসিম মিয়া কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

তিনি জানান, ‘এটি তার প্রথম সন্তান ছিল। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রাত ২টায় প্রথমে একটি ছেলে সন্তান এনে দেন। তাকে মোড়ানো কাপড় দেখে বুঝতে পারি এটি আমাদের নয়। পরবর্তীতে তারা একটি মেয়ে সন্তান এনে দেন’।

তিনি আরও বলেন, এরপর স্ত্রীর সাথে কথা বলে জানতে পারি আমাদের মেয়ে হয়েছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই সন্তান অসুস্থ হয়ে পড়লে আমরা ডাক্তারকে ডাকতে বলি। কিন্তু তারা তা শোনেননি।

সদর হাসপাতালে নিতে চাইলেও তারা গেট খুলে দেননি। ভোরে গেট খুললেও শিশুটি ততক্ষণে মারা যায়। এ ঘটনার বিচার দাবি করেন তিনি।

হবিগঞ্জের দি জাপান বাংলাদেশ ডায়গনস্টিক সেন্টার অ্যান্ড হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আরিফুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় তাদের কোনো ভুল ছিল না। শিশুটির মা-ই বলেছেন তাদের মেয়ে সন্তান হয়েছে। হাসপাতালের গেইটও তাদের জন্য খুলে দেয়া হয়েছিল। তবে শিশুটি মারা যায়।

ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. মুখলেছুর রহমান উজ্জ্বল জানান, এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন :
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp

আপনার মন্তব্য করুন :