বরিশাল ক্রাইম নিউজ

বরিশাল ক্রাইম নিউজ

অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা

বরিশালে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা

Print Friendly, PDF & Email

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বরিশালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন করা হয়েছে।

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে নগরের সোহেল চত্বরে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় সংলগ্ন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা।

প্রথমে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ।

এর পরপরই জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুসের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা।

পরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এ কে এম জাহাঙ্গীর ও সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’র নেতৃত্বে অন্য নেতারা।

এছাড়া বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে তার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান মহিলা লীগ, শ্রমিক লীগ, ছাত্রলীগসহ মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতারা।

এদিকে, বিকেলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ২০২০ ও বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বরিশালে ক্ষণগণনা ডিজিটাল ডিভাইসের কার্যক্রমের উদ্বোধন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) বিকেলে সারা দেশে এক যোগে ক্ষণগণনা কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জানা গেছে, দেশের সবগুলো সিটি করপোরেশন ও পৌরসভা এলাকা মিলিয়ে ২৭টি ক্ষণগণনা যন্ত্র বসানো হয়েছে। যার মধ্যে ব্যতিক্রমভাবে পুকুরের মধ্যে আয়রন ব্রিজের আদলে অবকাঠামো তৈরি করে বরিশালে স্থাপন করা হয়েছে ক্ষণগণনা ডিভাইজটি। যেটি বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) পরীক্ষামূলকভাবে চালু করে দেখাও হয়েছে।

সিটি করপোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবুল কালাম জানান, অন্য সব স্থানের থেকে বরিশাল নগরের ক্ষণগণনা ডিজিটাল ডিভাইস পুরোপুরি ব্যতিক্রমভাবে স্থাপন করা হয়েছে। আর এটা বরিশাল সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র উন্নত চিন্তাভাবনা ও দিক নির্দেশনার কারণেই।

তিনি জানান, সারা দেশের ১২টি সিটি করপোরেশন ও পৌরসভা এলাকায় সরকারিভাবে তিনটি ক্যাটাগরিতে ২৭টি কাউন্ট ডাউন মেশিন স্থাপন করা হয়েছে। এরমধ্যে বরিশাল সিটি করপোরেশনে ‘বি’ ক্যাটাগরির কাউন্ট ডাউন মেশিন স্থাপন করা হয়েছে। স্থাপিত এ কাউন্ট ডাউন ডিভাইসটি তিনটি ভাগে বিভক্ত। এর মধ্যে একটি মনিটর, একটি ডিজিটাল ঘড়ি ও একটি বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল।

এর কারণ উল্লেখ করে নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবুল কালাম বলেন, অন্য সিটি ও পৌর এলাকায় কাউন্ট ডাউন ডিজিটাল ডিভাইস স্থাপন হয়েছে উঁচু জমিতে। একমাত্র বরিশাল সিটির ডিভাইজটি স্থাপন হয়েছে পুকুরের ভেতরে। নগর ভবন সংলগ্ন জেলা পরিষদ পুকুরের দক্ষিণ পূর্ব কর্নারে আয়রন ব্রিজের আদলে তৈরি করে সেখানে স্থাপন করা হয়েছে এটি। এ কারণেই বরিশাল সিটির কাউন্ট ডাউন ডিভাইসটি অন্য সিটি বা পৌরসভার থেকে ভিন্নতা পেয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, আশপাশে অনেক জায়গা রয়েছে তাই খুব সুন্দরভাবে এটি উপভোগ করতে পারবেন সাধারণ মানুষ।

এদিকে, ক্ষণগণনা ডিজিটাল ডিভাইসের উদ্বোধনের পরে ওই দিন সন্ধ্যায় নগর ভবন চত্বরে আয়োজন করা হয়েছে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার। যেখানে ঢাকার চিরকুট ব্যান্ড পারফর্ম করবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *